বৃহস্পতিবার রাত ৮:৫৭, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ২৮শে মে, ২০২০ ইং
প্রতিবেদন
কপিপেস্ট সাংবাদিকতা বিষয়ে কথাগুলো আমারই: দুর্গাপুর প্রেসক্লাব সভাপতি দেশ দর্শনে “সম্পাদকের লাইভ” নামে সাপ্তাহিক আলোচনা (ভিডিও) সরাইল সদরের মৃৎ শিল্পীদের দুর্দিন রাজধানীর ব্যাংকগুলো করোনার অভয়াশ্রম দুর্গাপুরে চলছে কপিপেস্ট সাংবাদিকতা: ক্ষুব্ধ সচেতন মহল করোনাকে বাংলাদেশের ঈদের দাওয়াত ‘সেলফি দানবীরদের’ বিরিয়ানি বিতরণ! ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়ও দৈহিক দূরত্বের কোনো বালাই নেই! একজন রিকশাওয়ালার আর্তনাদ: মুখে ভাষা নেই করোনারোধে আগের তুলনায় মানুষ বেশি ধর্মমুখী হচ্ছে মসজিদ খুলে দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ‘আলেমদের’ ধন্যবাদ জানানোর হিড়িক তিতাস নদী কচুরিপানায় ভরপুর: ভোগান্তিতে কৃষক ও এলাকাবাসী

আম্ফান ঘূর্ণিঝড়ে শিশুর জন্ম: শিশুর নামও আম্ফান

৮৫ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

দ্বীপ জেলা ভোলার মনপুরার ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তাণ্ডবের সময় রাতে প্রসব বেদনা নিয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন প্রসূতি মা। বৃহস্পতিবার ভোর রাত ৪টায় হাসপাতালের ডাক্তার ও নার্সদের প্রচেষ্টায় ওই প্রসূতি মায়ের সুস্থ ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। ডাক্তার ও নার্সরা খুশিতে নবজাতকের নাম দেন আম্ফান।

ওই প্রসূতি মা হলেন, উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের চরযতিন গ্রামের বাসিন্দা ছালাউদ্দিনের স্ত্রী সামিয়া (২৫)। জানা যায়, ঘূর্ণিঝড়ের রাতে হাসপাতালে বেশ অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হন প্রসূতি মা সামিয়া। উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন হলেও ঘূর্ণিঝড়ের কারণে তাকে ভোলা নেয়া হচ্ছিল না। তারপরও রাতভর ডাক্তার ও নার্সদের চেষ্টায় সুস্থ সন্তান পৃথিবীর আলো দেখে। শিশুটিই ওই মায়ের প্রথম সন্তান। খুশিতে ডাক্তার-নার্সরা জন্ম নেয়া ওই ছেলের নাম দেন আমফান। ওই মা ও সন্তান আম্পান সুস্থ রয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য প.প. কর্মকর্তা ডাঃ মাহমুদুর রশীদ জানান, ওই প্রসূতি মা আশঙ্কজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে ওই প্রসূতি মা ছেলে সন্তান দিলে আমরা নাম দেই আমফান। মা ও আমফান সুস্থ আছে, সকালে বাড়ি চলে গেছে।

Some text

বিভাগ: মতামত

  • 36
    Shares

Leave a Reply

মানবতার হাসিতেই শেষ হল ক্লিন…

ঈদের আনন্দ আসবে: মোহাম্মদ আবুল…