সোমবার সন্ধ্যা ৬:১১, ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ ইং
প্রতিবেদন
ক‌রোনায় ১৭ জন সাংস‌দের মৃত্যু: দ্বিতীয় ঢেউয়ে আ‌রো শতাধিক আক্রান্ত পুরো ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর এখন ডাস্টবিন হরতালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সরকারী গণগ্রন্থাগার ধ্বংস (ভিডিও) মোদীবিরোধী বিক্ষোভে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নিহত ১, আহত অনেক এমপি মোকতাদিরের অনুদানপ্রাপ্ত বৃদ্ধার সাক্ষাৎকার ও ধর্মানুভূতি বাংলা‌দে‌শে ৯ লাখ মুসলমান খ্রিস্টান হ‌য়ে‌ছে: খ্রিস্টান ফাদার মুফতি নুরুল্লার ছেলে বেলায়েতুল্লাহ নুর আর নেই ওয়াজ-মাহ‌ফিলগুলো এখন মেলায় প‌রিণত: মুফতী জামালুদ্দীন ঘূর্ণিঝড় আম্ফান: এখনো পানিবন্দি ৩৬ হাজার মানুষ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে রিক্সা-ভ্যান শ্রমিকদের সংবাদ সম্মেলন: ৬ ডিসেম্বর অবস্থান কর্মসূচী নেশার রাজ্য বাংলাদেশ: আক্রান্ত যুবসমাজ ডাক্তার নেই: সরাইল উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে স্বাস্থ্যসেবা বন্ধ

নেশার রাজ্য বাংলাদেশ: আক্রান্ত যুবসমাজ

তোফায়েল আহমদ

গ্রামে গ্রামে কাটা ধানীজমিতে গভীর রাতে বসে যুবসমাজের আসর। জুতার গাম পলিথিনে ভরে অদ্ভুত উপায়ে একটা জঘন্য নেশার সিস্টেম।

জায়গাটার নাম কুড়ি পাড়। ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া থানার ৫নং দেওখোলা ইউনিয়ন। গিয়েছিলাম ধানক্ষেত দেখতে। ক’দিন পর কাটা পড়বে। তারপর দেখতে পেলাম গ্রামীণ যুবসমাজের ধ্বংসের এ চিত্র। জুতার গাম পলিথিনে ভরে অদ্ভুত উপায়ে একটা জঘন্য নেশার সিস্টেম। কুয়াশা ঢাকা রাতে লোকালয় থেকে দূরে অন্ধকারে চলে নেশার এ আয়োজন। সারা মাঠেই এখানে সেখানে পড়ে আছে গাম লাগা পলিথিন।
কুড়িপাড়স্থ কাটা ধানক্ষেতের আইলে বসে রাতের অন্ধকারে নেশাগ্রস্ত যুবসমাজ। এভাবেই ধ্বংসের পথে চলছে আমাদের সোনার বাংলাদেশ। কখনো লোকচক্ষুর অগোচরে, আবার কখনো প্রকাশ্যে। শুধু এখানেই নয়, গ্রামের আতর-বাতরগুলো হয়ে গেছে নেশার নিরাপদ আশ্রয়।

গভীর রাতে চলে এসব নেশাকাণ্ড। সন্ধ্যার পরপরই নীরব হতে থাকে গ্রামের পথ-ঘাট। রাত বারোটার পর একেবারে পুরোপুরি নিঝুমপুরী। কোথাও কোনো সাড়া শব্দ নেই, রাতপোকাদের ডাক ছাড়া। থাকে না পথিকের চলাচল। এমন নির্জনতা বেছে নেয় আক্রান্ত যুবসমাজ। নেশায় বুঁদ হয় প্রাণ মজিয়ে। এরই কিছু প্রমাণ পাই গতকাল ধানক্ষেত দেখতে গিয়ে।

এখানে সেখানে অনেক যায়গায় পেলাম গামের কৌটা, পলিথিন, সিগারেটের প্যাকেট, দেশলাইয়ের বক্স ইত্যাদি। কয়েক জায়গাতেই পেলাম এসব নেশার সরঞ্জাম। মাঠজুড়ে না জানি আরো কতো জায়গায় পাওয়া যাবে এসব।

খুবই জরুরি নেশায় আক্রান্ত এসব যুবকদের বাঁচানো। এরাই দেশের শক্তি। নেশার কবলে পড়ে কবরে যাচ্ছে জাতীয় ‘বল’ যুবসমাজ। আইনের দৃষ্টি এ বিষয়ে দ্রুতই পড়া খুবই প্রয়োজন।

এদিকে দেখা যায়, শুধু গ্রামে নয়, বাংলাদেশের প্রতিটি শহরের চিত্র আরো ভয়াবহ। শহরের শুধু ক্লাব কিংবা কমিউনিটি সেন্টারগুলোতে নয়, বিভিন্ন বাসাবাড়ি ভাড়া নিয়েও চলছে শত অনৈতিক ও অসামাজিক কার্যকলাপ এবং নেশা ও জুয়া। শহরের পাড়ায় পাড়ায় এসব ছড়িয়ে পড়ছে দ্রুত গ‌তি‌তে।

তোফায়েল আহমদ: ময়মনসিংহ থেকে 

ক্যাটাগরি: প্রধান খবর,  ভিডিও নিউজ,  শীর্ষ তিন,  সারাদেশ

ট্যাগ:

Leave a Reply