বৃহস্পতিবার রাত ৮:২৩, ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ২২শে অক্টোবর, ২০২০ ইং
প্রতিবেদন
বিতর্কিত মুফতি ফয়জুল্লার বিরুদ্ধে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সেই বিক্ষোভের ভিডিও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অনিয়ম-দুর্নীতির ভয়াবহ চিত্র ‘আঁরা টোকাই ন’, সী-বিচের দুই খেটে-খাওয়া শিশু সামাজিক আন্দোলন নিয়ে তারা রাজনীতি করছে: তথ্যমন্ত্রী নোয়াখালীতে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন: বিক্ষুব্ধ সারাদেশ শিমরাইলকান্দি খাদ্যগুদামের সামনে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ আবুল কাসেম ফজলুল হকের আটাশ দফা নিয়ে ভার্চুয়াল আলোচনা সরকারি রোষে ভারত ছাড়ল অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল জিয়াকে নিয়ে ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগে তারানা-সাজুর বিরুদ্ধে মামলা করোনাক্রান্তের পর অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যু শিমরাইলকান্দি রাস্তার সংস্কার দাবিতে মানববন্ধন: মেয়রের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ কাজীপাড়া মৌলভীহাটি মসজিদের পুকুর এখন কচুক্ষেত

সরকারি রোষে ভারত ছাড়ল অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল

গত মাসে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছিল, “ফেব্রুয়ারিতে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে হিন্দু ও মুসলমানদের মধ্যে দাঙ্গার সময় পুলিশ মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে।”

ভারতে কার্যক্রম স্থগিত করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন ‘অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল’। আজ মঙ্গলবার এনডিটিভি অনলাইনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। অ্যামনেস্টি এক সংবাদ বিবৃতিতে বলেছে, চলতি মাসের শুরুর দিকে ভারতে তাদের ব্যাংক হিসাব অবরুদ্ধ করা হয়। তাই তারা তাদের কর্মীদের ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়।

ব্যাংক হিসাব অবরুদ্ধের ঘটনায় ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে ‘উইচ-হান্ট’-এর অভিযোগ তুলেছে অ্যামনেস্টি। লন্ডনভিত্তিক এই আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনের অভিযোগ, বিভিন্ন বিষয়ে প্রতিকূল প্রতিবেদনের জেরে অ্যামনেস্টির বিরুদ্ধে ভারত সরকার এমন ব্যবস্থা নিয়েছে।

অ্যামনেস্টির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত অভিযোগে মানবাধিকার সংগঠনের বিরুদ্ধে ভারত সরকার কর্তৃক অবিরত ‘উইচ-হান্ট’-এর সবশেষ ঘটনা এটি। অ্যামনেস্টি আরো জানায়, ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার কর্তৃক তাদের ব্যাংক হিসাব পুরোপুরি অবরুদ্ধ করার বিষয়টি তারা ১০ সেপ্টেম্বর জানতে পারে। ব্যাংক হিসাব অবরুদ্ধ করায় ভারতে অ্যামনেস্টির সব কাজ থমকে যায়। তারা ভারতে তাদের কর্মীদের ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়। প্রচার ও গবেষণার চলমান সব কাজ স্থগিত করতে হয়।

ভারত সরকারের দাবি, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনটি বেআইনিভাবে বিদেশি ফান্ড সংগ্রহ করছে। আর তারা ফরেন কনট্রিবিউশন (রেগুলেশন) আইনে সংগঠনের নাম নিবন্ধিতও করেনি। এদিকে অ্যামনেস্টির ভাষ্য, তারা ভারতীয় ও আন্তর্জাতিক আইন মেনেই কাজ করে আসছে।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এর জ্যেষ্ঠ পরিচালক রজত খোসলা বলেন, ‘ভারতে আমরা সরকারের আগ্রাসনের মুখে পড়েছি। তারা নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে সেখানে আমাদের হয়রানি করছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা যে মানবাধিকার কাজ করে যাচ্ছিলাম এবং ভারতে সরকারের কাছে যে প্রশ্ন উত্থাপন করেছিলাম তার উত্তর তারা দিতে চাচ্ছে না। দিল্লির দাঙ্গার বিষয়ে আমাদের তদন্ত বা জম্মু ও কাশ্মীরের ঘটনায় আমাদের প্রতিবেদনের উত্তর না দিয়ে তারা অন্য ব্যবস্থা নিচ্ছে।’

গত মাসে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছিল, “ফেব্রুয়ারিতে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে হিন্দু ও মুসলমানদের মধ্যে দাঙ্গার সময় পুলিশ মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে।”

ক্যাটাগরি: শীর্ষ তিন,  সারাদেশ

ট্যাগ: আন্তর্জাতিক

Leave a Reply