শনিবার সকাল ১০:০০, ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ২৩শে অক্টোবর, ২০২১ ইং

সস্ত্রীক রিসোর্ট গমনের সুন্নত চালু

তোফায়েল আহমদ

রিসোর্ট সুন্নত চালু করতে আপনি একরাতের মজা কিনবেন পঁচিশ হাজার টাকায়! পঁচিশ হাজার টাকায় একজন শিক্ষকের পাঁচ মাসের বেতন, আর পাঁচজন শিক্ষকের একমাসের বেতন হয়ে যায়।

আবেগের বশে অনেকেই পোস্ট দিয়েছে সস্ত্রীক রিসোর্টে যাওয়ার। অনেকে বলেছে একশোবারও যাবে। একজন গিয়েই যে বিপদ নেমেছে, যদি সস্ত্রীক রিসোর্টে যাওয়ার ‘সুন্নত’ চালু করেন তখন দেখা যাবে ‘অস্ত্রীক’ রিসোর্টে যাওয়ার সুন্নতও প্রতিষ্ঠিত হয়ে গেছে সহজেই। আপনি কেন রিসোর্টে যাওয়ার কথা পাড়ছেন? আপনার নেতা রিসোর্টে গিয়ে বিপদে পড়েছেন তাই?

আপনার নেতা, কীসের নেতা? ইসলামী আন্দোলনের। ইসলাম কার? নবী সা.এর। নবী সা. কার? আল্লাহর। তাহলে আপনি মূলত আল্লাহকে ভালোবাসেন বলেই আবেগতাড়িত হয়ে বলছেন বউ নিয়ে রিসোর্টে যাবেন। এখন বলুন আন্দোলনের সৈনিক কারা? মাদরাসার ছাত্র-উস্তাদ। দেখুন, আপনি যদি একজন ব্যক্তিবিশেষের প্রেমান্বিত হয়ে প্রতিমাসে একবারও রিসোর্টে মজা মারতে যান, তবে আপনার খরচ হবে বিশ-পঁচিশ হাজার টাকা। চলমান মহামারী করোনায় যেসব মাদরাসা শিক্ষকদের বেতন হচ্ছে না, যারা ডাক এলেই রাজপথে নেমে আসে জীবনের মায়া ছেড়ে, যারা লড়ছে-মরছে, যাদের বেতন হয় মাত্র পাঁচ-ছয় হাজার টাকা, যারা ইসলামের মূল সম্পদ, তাদের বাঁচাতে আপনি কী করছেন?

ইসলাম কোনো ব্যক্তিনির্ভর ধর্ম নয়। এর হাল কেউ না কেউ ধরবেই। যদি ব্যক্তিনির্ভর হতো তবে নবী কারীম সা. এর ইন্তেকালের সাথে ইসলামও ইন্তেকাল করতো।

রিসোর্ট সুন্নত চালু করতে আপনি একরাতের মজা কিনবেন পঁচিশ হাজার টাকায়! পঁচিশ হাজার টাকায় একজন মাদরাসা শিক্ষকের পাঁচ মাসের বেতন, আর পাঁচজন শিক্ষকের একমাসের বেতন হয়ে যায়। এখন ভাবুন, আপনি রিসোর্ট বিলাসিতার মজা কিনবেন নাকি প্রকৃত তামান্না নিয়ে যারা ময়দানে মরতে আসে তাদের লালন করবেন!

আরো পড়ুন> নিরাপদ শিশুশিক্ষা শিশুর মৌলিক অধিকার

আসুন রিসোর্টের ‘মান’ কী জানি। আমি রিসোর্টকে উন্নতমানের ‘পাটক্ষেত’ মনে করি। পাটক্ষেত হলো এমন এক জায়গা যেখানে সবধরনের গোপন কাজ করা হয়। গ্রামীণ ভাষায় একে ‘নাইল্লাক্ষেত’ বলে। আপনি যদি নাইল্লাক্ষেতে একাই যান বা মেয়ে নিয়ে যান কিংবা বউ নিয়েই যান, আপনাকে সন্দেহের দৃষ্টিতে দেখা হবে। কারণ পাটক্ষেতে মদের আসরও বসে, নারী খেলাও জমে, জমে তাস ও জুয়াও। খুন এবং লাশ গুমের ঘটনাও আছে। ছোট্ট একটা সন্দেহ হলেও আপনাকে করা হবে।

পাটক্ষেত খারাপ নয় বরং এতে খারাপ কাজ সংঘটিত করে এর কপালে খারাপের তিলক তোলা হয়েছে। রিসোর্টও ঠিক তাই, সাধারণত এখানে মদ ও নারীকেলি চলে বেশি। এখন আপনি চাইলে রিসোর্টবিলাসিতায় যেতে পারেন। বলি, এতো আবেগ নিয়ে ঘুম হয় তো? ইসলাম কোনো ব্যক্তিনির্ভর ধর্ম নয়। এর হাল কেউ না কেউ ধরবেই। যদি ব্যক্তিনির্ভর হতো তবে নবী কারীম সা. এর ইন্তেকালের সাথে ইসলামও ইন্তেকাল করতো।

লেখকের ব্লগ

তোফায়েল আহমদ: শিক্ষক, কবি, কলামিস্ট

ক্যাটাগরি: মিনি কলাম

ট্যাগ:

One response to “সস্ত্রীক রিসোর্ট গমনের সুন্নত চালু”

  1. মনিরুল ইসলাম শ্রাবণ says:

    ধন্যবাদ চমৎকার লিখেছেন।

Leave a Reply