বৃহস্পতিবার বিকাল ৫:১৫, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং
প্রতিবেদন
ডাক্তার নেই: সরাইল উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে স্বাস্থ্যসেবা বন্ধ রিক্সা-ইজিবাইক লাইসেন্স দাবিতে উত্তাল ব্রাহ্মণবাড়িয়া: দাবি ৫দফা ‘আটাশ দফা’ নিয়ে দফাভিত্তিক ভার্চুয়াল আলোচনা বিতর্কিত মুফতি ফয়জুল্লার বিরুদ্ধে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সেই বিক্ষোভের ভিডিও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অনিয়ম-দুর্নীতির ভয়াবহ চিত্র ‘আঁরা টোকাই ন’, সী-বিচের দুই খেটে-খাওয়া শিশু সামাজিক আন্দোলন নিয়ে তারা রাজনীতি করছে: তথ্যমন্ত্রী নোয়াখালীতে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন: বিক্ষুব্ধ সারাদেশ শিমরাইলকান্দি খাদ্যগুদামের সামনে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ আবুল কাসেম ফজলুল হকের আটাশ দফা নিয়ে ভার্চুয়াল আলোচনা সরকারি রোষে ভারত ছাড়ল অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল জিয়াকে নিয়ে ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগে তারানা-সাজুর বিরুদ্ধে মামলা

হেফাজত ও কওমিশিক্ষা নিয়ে বিস্ফোরক বক্তব্য

বিশেষ প্রতিবেদক

নাস্তিক ব্লগাররা শাহবাগের অতিগুরুত্বপূর্ণ মোড়টি অবরোধ করে জামায়াতের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে পুরো ইসলামের বিরুদ্ধেই জনগণকে ক্ষেপিয়ে তোলে। এতে সাধারণ জগণের পাশাপাশি কওমি মাদরাসাওয়ালারাও ক্ষেপে যায়। অন্যদিকে জামায়াতে ইসলামিও এ সুযোগটা কাজে লাগায়।

২০১০ সালের পর হেফাজতে ইসলাম প্রথম আলোচনায় আসে নারী অধিকার নিয়ে তথাকথিত নারীবাদীদের কর্মকাণ্ড, বিতর্কিত নারীনীতি ও সরকারের অবস্থানের বিরোধিতা করে। এরপর বাংলাদেশের একটি বিশেষ রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে হেফাজতে ইসলাম আরো মুখ্য হয়ে ওঠে। অথচ এটি চট্টগ্রামের একটি আঞ্চলিক ধর্মীয় সংগঠন। এর প্রধান হিসেবে চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদরাসার পরিচালক আহমদ শফী এবং জুনায়েদ বাবুনগরীও তখন ধর্মীয় বিভিন্ন বক্তব্য দিয়ে তুমুলভাবে আলোচনায় আসেন। কারণ তখন বাংলাদেশে নাস্তিক্যবাদী ব্লগারদের উত্থান, জামায়াতে ইসলামির কেন্দ্রীয় নেতাদের আটক এবং একে একে সাজা ও ফাঁসির রায়কে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি দিন দিন আরো ঘোলাটে হচ্ছিল কিংবা বিশেষ কিছু দল ও গোষ্ঠী ঘোলাটে করছিল।

যা অনেকেই জানে না কিংবা বুঝতে পারে না, তা হচ্ছে, হেফাজতে ইসলামের হঠকারিতা, সঠিক নেতৃত্বহীনতা এবং লাগামহীন বক্তব্য। একদিকে ধীরে ধীরে হেফাজত তলিয়ে যেতে থাকে সুবিধাবাদী ও ধর্মীয় মুখোশধারী ব্যক্তিদের অজ্ঞতা ও স্বার্থের অন্ধকারে, অন্যদিকে এতে ফুটে ওঠে মাদরাসা শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের শিক্ষাব্যবস্থায় দীর্ঘদিনের বাস্তব ঘাটতি। পরিবেশ-পরিস্থিতি কিংবা সংগঠন ও নেতৃত্বের বাস্তব জ্ঞান ও প্রশিক্ষণ না থাকায় ইসলামন্থীরাই একে কেন্দ্র করে দিন দিন সংগঠিত না হয়ে বরং বিভক্ত হতে থাকে।

এরই ধারাবাহিকতায় একপর্যায়ে নাস্তিক ব্লগাররা শাহবাগের অতিগুরুত্বপূর্ণ মোড়টি অবরোধ করে জামায়াতের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে পুরো ইসলামের বিরুদ্ধেই জনগণকে ক্ষেপিয়ে তোলে। এতে সাধারণ জগণের পাশাপাশি কওমি মাদরাসাওয়ালারাও ক্ষেপে যায়। অন্যদিকে জামায়াতে ইসলামিও এ সুযোগটা কাজে লাগায়। ফলে শাপলা চত্বরে জমতে থাকে বিকল্প আন্দোলন।

যা অনেকেই জানে না কিংবা বুঝতে পারে না, তা হচ্ছে, হেফাজতে ইসলামের হঠকারিতা, সঠিক নেতৃত্বহীনতা এবং লাগামহীন বক্তব্য। একদিকে ধীরে ধীরে হেফাজত তলিয়ে যেতে থাকে সুবিধাবাদী ও ধর্মীয় মুখোশধারী ব্যক্তিদের অজ্ঞতা ও স্বার্থের অন্ধকারে, অন্যদিকে এতে ফুটে ওঠে মাদরাসা শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের শিক্ষাব্যবস্থায় দীর্ঘদিনের বাস্তব ঘাটতি। পরিবেশ-পরিস্থিতি কিংবা সংগঠন ও নেতৃত্বের বাস্তব জ্ঞান ও প্রশিক্ষণ না থাকায় ইসলামন্থীরাই একে কেন্দ্র করে দিন দিন সংগঠিত না হয়ে বরং বিভক্ত হতে থাকে।

আর এসব নিয়েই দেশ দর্শন সম্পাদক জাকির মাহদিন এর আজকের আলোচনা। এতে তিনি মাদরাসা শিক্ষার মূল সমস্যা, হেফাজতের সাথে জনগণের সম্পর্ক, হেফাজত নেতাদের দাম্ভিক আচরণ ইত্যাদি বিষয়গুলো নিয়ে পর্যালোচনা করেছেন।

 

ক্যাটাগরি: ধর্ম-দর্শন-বিজ্ঞান,  প্রধান খবর,  ভিডিও নিউজ,  শীর্ষ তিন

ট্যাগ:

Leave a Reply