সোমবার সন্ধ্যা ৬:২৪, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

১ বছর পর ফুটলো নাইট কুইন ফুল

৯৮ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

দিনের পর দিন। মাসের পর মাস আঁধার কেটে যায়, তবুও দেখা মেলে না। ধৈর্য্যের দীর্ঘ প্রতিক্ষায় অবশেষে ফুটল রাতের রানী নাইট কুইন।

একবছর পর অসীম ধৈর্য্য নিয়ে নাইট কুইন ফোটার দিন গুনছিলেন সঞ্চিতা ইসলাম ও আমার আদরের দুই সন্তান, বললেন সদর থানার ওসি ইনচার্জ তানভিরুল ইসলাম। তাও আবার একটি গাছে পাঁচটি ফুল দেখে লোভ সামলাতে না পেরে তিনি নিজেই ধারণ করলেন ফুল ফোটার দৃশ্য। তিনি জানান, যারা রাতের রানীর সৌন্দর্যে আর তার ক্ষণ অস্তিত্ব নিয়েই এতদিন জানতেন, তাদের জন্য এই দৃশ্য এক বিরল দৃশ্য বটে।

বিরল ক্যাকটাসের ফুল এ নাইট কুইনের আদি নিবাস আমেরিকার দক্ষিণাঞ্চল এবং মেক্সিকোতে হলেও বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় মিলে এই গাছ। তবে ফুলের দেখা খুব কম মানুষের ভাগ্যেই হয়। তবে সাদা রঙের রাজকীয় আবরনের ফুলটির চির স্নিগ্ধ, শুভ্র-পবিত্র রূপই নাইট কুইনের সৌন্দর্যের মূল রহস্য। তাও আবার সেই রাতের কয়েক ঘন্টার অন্ধকারেই হয় তার জীবনাবসান।

বৃহস্পতিবার রাত এগারোটায় সদর থানার ওসি জানান, বাসার সামনে ফুলের টবে দেখা মেলে দুর্লভ ফুল নাইট কুইনের। দীর্ঘ দিন সন্তানের মত পালন করে অপেক্ষার প্রহর গুনে গুনে কেটেছে তার স্ত্রী সঞ্চিতা ইসলামের।

সঞ্চিতা ইসলামের অনুরোধে এক বছর আগে নাইট কুইন ফুলের গাছটি সংগ্রহ করে বাড়িতে টবে লাগিয়েছিলেন। বিকেলে গেটের সামনে বের হতেই হঠাৎ গাছটির কলি চোখে পরে। দীর্ঘ দিন অপেক্ষার পর সন্ধ্যার দিকে ফোটে নাইট কুইন।তিনি বলেন,ফুল টিকে নিজের চোখের সামনে ফুটতে দেখতে পেয়ে আমি আনন্দিত।

উল্লেখ্য, নাইট কুইন ফুলের প্রথম দর্শন ঘটেছিল দু’হাজার বছর আগে বেথেলহ্যাম নগরীতে। প্রচলিত রয়েছে যিশু খ্রিস্টের জন্মের সময় নগরীর প্রত্যেক বাড়িতে নাইট কুইন ফুলে ফুলে ছেয়ে যায়। অনেকের কাছে এ ফুলটি বেথেলহ্যামফ্লাওয়ার নামেও পরিচিত। তাছাড়া প্রচলিত ভাবে নাইট কুইনকে সৌভাগ্যের প্রতীক বলে মনে করেন অনেকেই।

Some text

ক্যাটাগরি: নাগরিক সাংবাদিকতা

Leave a Reply

বৌয়ের বয়স কম

শ্রীমঙ্গল শহরের স্মৃতি