শুক্রবার সকাল ৯:১৪, ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ৩০শে জুলাই, ২০২১ ইং

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত

আদিত্ব্য কামাল

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে জিহাদ (৩২) নামের এক যুবক ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (১৫ জুন) বিকেল ৩টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এরআগে দুপুর ১টার দিকে উপজেলার সিঙ্গারবিল ইউনিয়নের কাশিনগর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত জিহাদ ওই এলাকার মালেক মিয়ার ছেলে। এই ঘটনায় মালু মিয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূূূত্রে জানা যায়, কাশিনগরের প্রভাবশালী মাদক ব্যবসায়ী ইব্রাহিম মিয়ার মেয়ে নিপা আক্তারকে বিয়ে করেন একই এলাকার মালু মিয়ার ছেলে প্রবাসী সেলিম মিয়া। সম্প্রতি নিপার সাথে তার স্বামীর মনোমালিন্য চলছিল। এই নিয়ে দুই পরিবারের মাঝে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল।

গত সোমবার (১৪ জুন) প্রবাসে থাকা সেলিমের সাথে মুঠোফোনে স্ত্রী নিপার কথা কাটাকাটি হয়। তর্কবিতর্ক চলাকালে সেলিম তার স্ত্রী নিপাকে বলে, তোমার বাবা মাদক ব্যবসায়ী। একথা নিপা তার বাবা ইব্রাহীমকে জানালে তার লোকজন শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে হামলা-ভাঙচুর করে। মঙ্গলবার সকালে ইব্রাহীমের লোকজনকে স্থানীয় বাজারে পেয়ে মালু মিয়ার লোকজনের উপর হামলা করে।

এ নিয়ে গ্রামের সড়কে দু’পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সশস্ত্র সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় ইব্রাহীমের পক্ষের জিহাদ মিয়া ছুরিকাঘাত হলে তাকে উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেখানে বিকেল ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লোকমান হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। মালু মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মরদেহ জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের রাখা আছে।

আদিত্ব্য কামাল: নিজস্ব প্রতিবেদক

ক্যাটাগরি: ব্রাহ্মণবাড়িয়া,  শীর্ষ তিন

ট্যাগ:

Leave a Reply