বৃহস্পতিবার রাত ৪:৪৩, ১৪ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ২৬শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং

মৃত্যু উপত্যকা পাহাড়ী জনপদ

পাহাড়ী জনপদ বর্ষা এবং বৃষ্টির ভরা মৌসুমে অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু এবং ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়। চট্টগ্রাম, পার্বত্য চট্টগ্রামের জেলাসমূহ এবং পর্যটন নগরী কক্সবাজারের কয়েক লক্ষ মানুষ এই মৃত্যু-ঝুঁকির মধ্যে বসবাস করে। এ-যেন মৃত্যু উপত্যকা, প্রতি বছরই মানুষ মারা পড়ছে সেখানে।

কর্তৃপক্ষের চোখের সামনে বছরের পর বছর দৃর্বত্ত ও প্রভাবশালীরা অবৈধভাবে পাহাড়ে ঘরবাড়ি নির্মাণ করে, বস্তি বানিয়ে দরিদ্র মানুষের কাছে ভাড়া দেয়। তাদের কাছে এটা অর্থ রোজগারের সহজ উপায়, মোক্ষম সুযোগ। কিন্তু অভাবগ্রস্তদের জন্য বাধ্য হয়ে স্বল্পখরচে বসবাসের জন্যে এসে পরিবার ও স্বজনদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়া। কর্তৃপক্ষ এবং প্রশাসন শুরুতে দূর্বৃত্ত ও প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে কোনো কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করে না। মানুষের মৃত্যু ও ক্ষয়ক্ষতির পর উদ্ধার তৎপরতায় ঝাঁপিয়ে পড়ে।

তাই, এখন সময়ের দাবী, পরিস্থিতির ভয়াবহতা উপলব্ধি করে কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসনকে পাহাড়ে বসবাসরতদের জন্যে বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করে পাহাড়কে জনশূণ্য করা এবং দূর্বৃত্ত, দখলদার প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে আইনী পদক্ষেপ নেয়া।

ক্যাটাগরি: মিনি কলাম

ট্যাগ:

Leave a Reply