বৃহস্পতিবার রাত ৪:২৯, ১৪ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ২৬শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং

রূঢ় বাস্তবতা

* ১০ বছর আগে ক্লাসের সবচেয়ে সুন্দরী ‘নজর কাড়া’ মেয়েটা এখন দুই বাচ্চার মা। কিন্তু তার সেই রূপ এখন আর নাই! এখন আর সে আলাদাভাবে সুন্দরী হিসাবে কারো ‘নজর’ কাড়ে না!

* পড়াশোনায় সবচেয়ে বেশি সময় ব্যয় করা ক্লাসের সেই মেধাবী ছেলেটা এখনো বেকার ঘুরে!

* ৭-৮ বছর ধরে নিজের ইচ্ছেমতো একের পর এক প্রেম করা সুন্দরী মেয়েটা এখন নিজের অনিচ্ছায় অপছন্দের মানুষের সাথে সংসার করে!

* ৩৫-৪০ বছর আগে প্রেম করে বিয়ে করা জুটিটা এখন নিজের ছেলে/মেয়ের প্রেম আছে শুনে বাকরুদ্ধ হয়ে যায়!

* অন্য ক্লাসমেটদের চেয়ে ৪-৫ বছর আগেও তুলনামুলক ভালো জায়গায় জব পেয়ে ‘ইস্টাবলিশ’ ছেলেটা এখন দুই বছর ধরে কবরে!

* ৫ বছর যে মেয়েটাকে অনেক স্বপ্ন দেখিয়ে বিয়ে করে ঘরে আনলে, বিয়ের ৮ আট বছরেই দুই বাচ্চা রেখে অন্য মেয়ের ঘরে  সে উঁকি দেয়।

* কখন যে কার কপালে কি ঘটে তা আগে থেকে প্রেডিক্ট করা সম্ভব না।

* অর্থ-বিত্ত, রূপ-গুণ আর প্রভাব-প্রতিপত্তির মাধ্যমে সাময়িক কিছুদিনের জন্য আপনি হয়তো ‘সময়কে’ নিজের মতো করে চালাতে পারবেন, কিন্তু সর্বদা ‘সময়’ আপনার ইচ্ছা আর কর্ম অনুযায়ী চলবে– এমন আশা করলে ভুল করবেন!
.
* রূঢ় বাস্তবতা– সবার বেলায়ই ‘সময়’ ফিরে ফিরে আসে! কারো জীবনে তা হয়তো ৫ মাস পরে আসে, আবার কারো ২৫ বছর পরে… আজকে আপনি কারো উপর জুলুম করলে, অহংকার করলে শিউর থাকেন, ভবিষ্যতে একদিন আপনাকেও একই সিচুয়েশনে পড়তে হবে। তেমনিভাবে আপনাকে দুর্বল মনে করে কেউ যদি আপনার সাথেও এমন কিছু করে ফেলে, হতাশ হওয়ার দরকার নাই। ভবিষ্যতে ‘সময়’ নিজেই এর শোধ নিবে!
.

অল্প কয়দিনের জিন্দেগী, তার চেয়েও অল্প কয়দিনের প্রভাব-প্রতিপত্তি! আর রূপ-গুণের ঠাটবাট!!

এরপরও মানুষের হৃদয় ভাঙ্গতে এতটুকুও সময় লাগে না। সৃষ্টিকর্তা তো উপরে আছেনই।।

ক্যাটাগরি: মিনি কলাম

ট্যাগ:

One response to “রূঢ় বাস্তবতা”

  1. লিজা আহমেদ says:

    বাস্তবতা– বড় কঠিন

Leave a Reply